এমপি পাপুল কুয়েতের নাগরিক নন

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজনীতিঃ কুয়েতে গ্রেপ্তার বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য শহীদ ইসলাম পাপুলকে সে দেশের নাগরিকত্ব দেওয়া হয়নি বলে জানিয়েছে আরব দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

গ্রেপ্তারকৃত পাপুল কুয়েতের নাগরিকত্ব নিয়ে থাকলে তার সংসদ সদস্যপদ বাতিল হবে বলে সংসদে বাংলাদেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষণা দেওয়ার পরের দিন কুয়েত সরকার এই তথ্য জানাল।

বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অভিযুক্ত পাপুলকে কুয়েতের নাগরিক বলে তথ্য আসছে তা সঠিক নয় বলে বৃহস্পতিবার দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, পাপুল কুয়েতে ফরেনার্স রেসিডেন্সশিপ আইনে বাস করছেন।

বিবৃতিতে কুয়েতের ডেপুটি প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী আনাস আল-সালেহ বলেছেন, “এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। দুর্নীতির একাধিক অভিযোগ থাকায় বিষয়টি এখন পাবলিক প্রসিকিউশনের হেফাজতে পাঠানো হয়েছে।”

বিষয়টি নিয়ে বুধবার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছিলেন, পাপুল কুয়েতের নাগরিক কী-না দেখা হচ্ছে। কুয়েতের নাগরিক হয়ে থাকলে পাপুলের নির্বাচিত আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হতে পারে।

গত ৬ জুন রাতে কুয়েতের মুশরিফ এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয় পাপুলকে। পাচারের শিকার পাঁচ বাংলাদেশির অভিযোগের ভিত্তিতে তার বিরুদ্ধে মানবপাচার, অর্থপাচার ও ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের কর্মীদের শোষণের অভিযোগ এনেছে কুয়েতি প্রসিকিউশন।

গ্রেপ্তারের পর রিমান্ডে টানা ১৭ দিন জিজ্ঞাসাবাদ শেষে পাপুলকে ২১ দিনের কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এরই মধ্যে কুয়েতের পাবলিক প্রসিকিউসন তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে।

সংবাদমাধ্যমে খবর, জিজ্ঞাসাবাদে পাপুল নিজেকে নির্দোষ দাবি করেছেন। জানিয়েছেন, কাজ ছাড়িয়ে নিতে কুয়েত সরকারের কিছু কর্মকর্তাকে ঘুষ দেওয়া ছাড়া কোনো উপায় ছিল না তার।

রাজনীতি/কাসেম

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here