কক্সবাজারের এসপি মাসুদকে রাজশাহীতে বদলি

পুলিশ সুপার (এসপি) এবিএম মাসুদ হোসেন ।

নিজস্ব প্রতিবেদক: অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় আলোচনায় আসা পুলিশ সুপার (এসপি) এবিএম মাসুদ হোসেনকে কক্সবাজার জেলা থেকে রাজশাহীতে বদলি করা হয়েছে।

অন্যদিকে ঝিনাইদহের পুলিশ সুপার মো. হাসানুজ্জামানকে কক্সবাজারে বদলি করা হয়েছে।

পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেনের পাশাপাশি পুলিশের ঊর্ধ্বতন ৬ কর্মকর্তাকে বুধবার বদলি করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

জননিরাপত্তা বিভাগ থেকে জারি করা ওই প্রজ্ঞাপনে খুলনার পুলিশ কমিশনার খন্দকার লুৎফুল কবিরকে গাজীপুরে পাঠানো হয়েছে একই দায়িত্ব দিয়ে।

এসবির উপ মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) মো. মাসুদুর রহমান ভুঞাকে দেওয়া হয়েছে খুলনার পুলিশ কমিশনারের দায়িত্ব।

ঢাকা মহানগর পুলিশের উপ -কমিশনার মুনতাসিরুল ইসলামকে ঝিনাইদহ জেলার পুলিশ সুপারের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

আর রাজশাহী জেলার পুলিশ সুপার মো. শহিদুল্লাহকে বদলি করা হয়েছে ঢাকা মহানগর পুলিশে।

গত ৩১ জুলাই রাতে কক্সবাজারের টেকনাফের কাছে বাহারছড়া চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন অবসর প্রাপ্ত মেজর সিনহা। সিনহার বোন শারমিন শাহরিয়া ফেরদৌস গত ৫ অগাস্ট কক্সবাজারের হাকিম আদালতে নয়জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

ওই মামলার আসামি বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের পরিদর্শক লিয়াকত আলী এবং টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাসসহ সাত পুলিশ সদস্য পরে আদালতে অত্মসমর্পণ করেন। তাদের চাকরি থেকে সাময়িক বরখাস্তও করা হয়।

সে সময় কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেনের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি ওঠে বিভিন্ন মহল থেকে। অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তাদের সংগঠন রাওয়া’র নেতারা হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে পুলিশ সুপারকে প্রত্যাহারের দাবি জানান।

বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট- বিএফআইউ গত ১৮ অগাস্ট এসপি এবিএম মাসুদ হোসেন, ওসি প্রদীপ কুমার দাসসহ আটজনের ব্যাংক হিসাব স্থগিতের নির্দেশ দেয়।

কক্সবাজারের পুলিশ সুপারকে সিনহা হত্যা মামলায় আসামি করতে আদালতে আবেদনও করেছিলেন তার বোন, তবে বিচারক তা খারিজ করে দেন।

রাজনীতি/কাসেম

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here