গেইলের অবিশ্বাস্য রেকর্ড

চাহালের সঙ্গে গেইল । ছবি সংগৃহীত

ক্রীড়া ডেস্ক: টি-টুয়েন্টির সর্বকালের সেরা ব্যাটসম্যান বল হয়ে ক্যারিবিয়ান তারকা ক্রিস গেইলকে। ব্যাট হাতে চার-ছক্কার ঝড় তুলে বোলারদের কাছে ত্রাসে পরিণত হয়েছেন এ ব্যাটসম্যান। তবে এবারের আইপিএলে ব্যাট হাতে মাঠে নামতে তাকে অপেক্ষা করতে হলো টুর্নামেন্টের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত। পাঞ্জাবের অষ্টম ম্যাচে খেলার সুযোগ পেয়েছেন গেইল।

মাঠে নামেই ব্যাট হাতে দুর্দান্ত এক ফিফটি তুলে নিয়েছেন এ বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান। আর এ ফিফটি হাঁকানোর পথে গড়েছেন অবিশ্বাস্য এক রেকর্ড। ক্রিকেটে সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে চার-ছক্কা মিলিয়ে তার রানসংখ্যা এখন ১০ হাজার! এখন পর্যন্ত তিনি ১০২৭টি চার মেরেছেন। এতে তার রান ৪,১০৮। পাশাপাশি ছক্কা মেরেছেন ৯৮৩টি। এখানে তার রান ৫,৮৯৮। চার-ছক্কা মিলিয়ে গেইলের সর্বমোট রান ১০,০০৬।

টি-টুয়েন্টি ক্রিকেটের ইতিহাসে এমন ঘটনা এই প্রথম। এমনকি গেইলের রেকর্ডের ধারে-কাছেও কেউ নেই। টি-টুয়েন্টি ক্রিকেটে বহু আগেই ১০ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করেছেন গেইল। ৪০৫ ম্যাচে ২২টি সেঞ্চুরি ও ৮৩টি হাফ-সেঞ্চুরিতে তার সংগ্রহ ১৩,৩৪৯ রান। আর আ ইপিএলের ৩১তম ম্যাচে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের হয়ে ৪৫ বলে ১ চার ও ৫ ছক্কায় ৫৩ রানের ইনিংস খেলার পথে তিনি এই রেকর্ড গড়েন।

গেইলের মতো চার-ছক্কায় না পারলেও, টি-টুয়েন্টি ক্রিকেটে ১০ হাজার রানের মালিক আরও দুই জন। তারা হলেন- ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাইরন পোলার্ড ও পাকিস্তানের শোয়েব মালিক। পোলার্ড ৫১৯ ম্যাচে ১টি সেঞ্চুরি ও ৫১টি হাফ-সেঞ্চুরিতে ১০,৩৮১ রান করেছেন। হাঁকিয়েছেন ৬৬৫টি চার ও ৬৮৫টি ছক্কা। সদ্যই ১০হাজার রানের ক্লাবে নাম লেখান শোয়েব মালিক। তার ক্যারিয়ারে কোনো সেঞ্চুরি নেই। ৬২ হাফ সেঞ্চুরি, ৭৯০টি চার ও ২৯৯টি ছক্কায় শোয়েবের রান ১০,০৭৭।

রাজনীতি/আফজাল

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here