গ্যাস লাইন থেকেই মসজিদে বিস্ফোরণ, আহত ৩৮ জন হাসপাতালে

নিজস্ব প্রতিবেদক, নারায়ণগঞ্জঃ মসজিদের নিচের গ্যাসের লাইনের অসংখ্য লিকেজ থেকে নারায়ণগঞ্জের তল্লা বাইতুস সালাম মসজিদে এয়ার কন্ডিশনার (এসি) বিস্ফোরণের এই ঘটনা ঘটেছে। নারায়ণগঞ্জ শহরের খানপুর এলাকায় তল্লা বড় মসজিদে এসি বিস্ফোরণে অন্তত ৪০ জন মুসল্লি অগ্নিদগ্ধ হয়েছেন। এর মধ্যে ৩৮ জনকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক ইনস্টিটিউটে ভর্তি হয়েছেন। ভর্তি হওয়া ৩৭ জনের মধ্যে অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

শুক্রবার (৪ সেপ্টেম্বর) রাত পৌনে ১২টার দিকে প্রাথমিক অনুসন্ধান শেষে গণমাধ্যমকে এই তথ্য জানিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের উপ পরিচালক আব্দুল্লাহ আল আরেফিন।

তিনি জানান, মসজিদের ফ্লোরের নিচ দিয়ে এয়ারকন্ডিশনের পাইপের সংযোগ ছিল। পাইপ লিক করে বুদবুদ আকারে গ্যাস বের হচ্ছিল। দরজা জানালা বন্ধ থাকায় কেউ হয়তো ইলেকট্রিক লাইনের কোনো সুইচ চালু করতে গিয়ে বিদ্যুৎ স্পার্ক হয়ে বিস্ফোরণটি ঘটে। এ ঘটনায় অর্ধশতাধিক আহত হয়েছেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।

প্রাথমিকভাবে ফায়ার সার্ভিস ধারণা করে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানালে তারা এসি গ্যাস থেকে বিস্ফোরণের ব্যাপারে নিশ্চিত করেছে।

এ দিকে, এখন পর্যন্ত ৩৮ জন মুসল্লিকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হ‌য়ে‌ছে। তা‌দের সবারই ডিপ বার্ন রয়েছে। শতাংশের হি‌সে‌বে কোন রোগীর কতটুকু বার্ন হ‌য়ে‌ছে তা এখনই বলা যা‌চ্ছে না। ত‌বে প্রাথ‌মিকভা‌বে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, কেউ শঙ্কামুক্ত নয়।

এর আগে শুক্রবার (৪ সেপ্টেম্বর) রাতে এশার নামাজ চলাকালে শহরের তল্লা বাইতুস সালাম মসজিদে এই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এতে মুহূর্তের মধ্যে মসজিদের ভেতরে থাকা ৩০ থেকে ৪০ জনের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় হুড়োহুড়ি করে বের হওয়ার চেষ্টা করেন তারা। তাদের অনেকেই দগ্ধ ও আহত ছিলেন। আহতদের শহরের ভিক্টোরিয়া হাসপাতাল ও ঢাকায় শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে।

রাজনীতি/কাজল

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here