চলন্ত বাসে নারী হকারকে ধর্ষণ, চালক গ্রেপ্তার

তাকওয়া পরিবহনের চালক সাদ্দাম হোসেন ।

নিজস্ব প্রতিবেদক, গাজীপুর: চলন্ত বাসে এক নারী হকারকে ধর্ষণের অভিযোগে তাকওয়া পরিবহনের চালক সাদ্দাম হোসেনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সঙ্গে ওই বাসটি জব্দ করে জয়দেবপুর থানায় নেওয়া হয়েছে। গাজীপুরের বাঘের বাজার এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

আজ রোববার সকালে ধর্ষিত ওই নারী বাদী হয়ে দুজনকে আসামি করে জয়দেবপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় পুলিশ সাদ্দাম হোসেনকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে জেলহাজতে পাঠিয়েছে।

পুলিশ ও ভুক্তভোগী ওই নারী জানায়, বিভিন্ন পরিবহনের চকলেট বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করতেন ওই নারী হকার। শনিবার দিনভর কালিয়াকৈরের চন্দ্রা এলাকায় বিভিন্ন পরিবহনে চকলেট বিক্রি করে আসলেছিলেন তিনি। পরে রাত ৯টার দিকে চকলেট বিক্রির সময় তাকওয়া পরিবহনের চালক সাদ্দাম হোসেন ও শরীফ হোসেন বাসটি গাজীপুর সিটি করপোরেশনের চান্দনা চৌরাস্তা নিয়ে যায় । সেখান থেকে খালি বাস নিয়ে ফেরার পথে ওই নারীকে কুপ্রস্তাব দেয় তারা ।

এ সময় ওই নারীকে গাড়ি থেকে না নামিয়ে জেলার বিভিন্ন রোটে নিয়ে ঘুরতে থাকে তারা। এক পর্যায়ে গাড়িটি ভাওয়াল মির্জাপুর এলাকায় পৌঁছলে বাসের মধ্যে ধর্ষণ করা হয় ওই নারীকে। পরে বাসটি নিয়ে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের বাঘের বাজার এলাকায় গেলে নারীর চিৎকার শুনে টহলরত পুলিশ সেটিকে থামানোর সংকেত দেন। এ সময় বাসের সহকারি শরীফ হোসেন দৌড়ে পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে চালক সাদ্দাম হোসেনকে আটক করে এবং তাকওয়া পরিবহনের ওই বাসটি জব্দ করে পুলিশ।

এ ব্যাপারে জয়দেবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাবেদুল ইসলাম জানান, তাকওয়া পরিবহনের ওই বাসের গতিবিধি সন্দেহ হলে টহল পুলিশ বাসটি আটক করে। পরে নারী হকারকে ধর্ষণের বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে চালক সাদ্দাম হোসেনকে গ্রেপ্তার ও বাসটি জব্দ করা হয়। মামলার অপর আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

রাজনীতি/কাসেম/ইমরান

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here