ধর্ষণ বিরোধী লংমার্চে হামলায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন জাতীয় মানবাধিকার সমিতি

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ দেশব্যাপী ধর্ষণ, নারী নিপীড়ন ও বিচারহীনতার প্রতিবাদে শাহবাগ থেকে নোয়াখালীর একলাশপুরগামী লংমার্চে হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে আহত হয়েছেন ৮ জন।

সমাবেশ শেষে শনিবার (১৭ অক্টোবর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ফেনী শহরের কুমিল্লা বাস স্ট্যান্ড এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। এর আগে শহরের শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে লংমার্চে অংশ নেওয়া আন্দোলনকারীরা সমাবেশ করেন।

লংমার্চে অংশ নেওয়া আন্দোলনকারীরা বলেন, ধর্ষণের বিরুদ্ধে সমাবেশ ও প্রচারাভিযান করে ফেনী জেলা প্রশাসন কার্যালয়ের দিকে যাওয়ার সময় কুমিল্লা বাস স্ট্যান্ড এলাকায় গেলে কয়েকজন সন্ত্রাসী লাঠি নিয়ে হামলা করে। এসময় লংমার্চে অংশ নেওয়া হৃদয়, শাহাদাত, অনিক, যাওয়াদসহ ৮ জন আহত হয়।

আর এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার সমিতি। রবিবার দুপুরে মারুফ সরকারের পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তি এ প্রতিবাদ জানানো হয়। সংগঠনের চেয়ারম্যান মোঃ মঞ্জুর হোসেন ঈসা,মহাসচিব সাইফুল ইসলাম সেকুল এবং সাংগাঠনিক সম্পাদক লায়ন আল আমিন এ প্রতিবাদ করেন এবং সুস্থ তদন্ত দাবি করে বলেন ,মানুষের সভা-সমাবেশের অধিকার হরণ করে, হামলা-মামলা করে শাসকগোষ্টি দুঃশাসনের বিরুদ্ধে যে আন্দোলন চলছে তারই যৌক্তিকতা প্রমাণ করেছে হামলাকারীরা। যদি এ ঘটনার সুস্থ বিচার না পাওয়া যাই তাহলে বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার সমিতি কঠোর আন্দোলন করবে ।

রাজনীতি/কাসেম

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here