নবান্ন উৎসব উপলক্ষে শিল্পকলায় গান কবিতা নৃত্য

সাংস্কৃতি প্রতিবেদকঃ বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে সোমবার পহেলা অগ্রহায়ণ উদযাপিত হলো ২২তম জাতীয় ‘নবান্ন উৎসব-১৪২৭’।

‘এসো মিলি সবে নবান্নের উৎসবে’ স্লোগানে এ উৎসবে হয়েছে গান, কবিতা ও নৃত্য। ছিল নবান্নের নানা ধরনের পিঠার আয়োজনও।

অগ্রহায়ণ এলেই মাঠজুড়ে আমন ধান কাটার ধুম পড়ে। কৃষকের এই ‘নবান্ন’ উৎসবের ছোঁয়া বহুবছর ধরেই লেগে আছে নাগরিক জীবনে।

ঐতিহ্যবাহী এ শস্য উৎসব উপলক্ষে প্রতি বছরের মতো এবারও বর্ণিল উৎসব হয়েছে শিল্পকলায়।

বিকেল সাড়ে ৪টায় একাডেমির কফি হাউস চত্বরে উন্মুক্ত মঞ্চে যন্ত্রসঙ্গীতের মধ্য দিয়ে সূচনা হয় এ উৎসব। এর পরই হয় নবান্ন কথন পর্ব। সেখানে উপস্থিত ছিলেন উৎসবের প্রধান অতিথি সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ।

এরপর একে একে শিশুদল হিসেবে সঙ্গীত, নৃত্য ও আবৃত্তি পরিবেশন করে মন্দিরা সাংস্কৃতিক পাঠশালা, দনিয়া সবুজ কুঁড়ি কচিকাঁচার মেলা ও স্বপ্নবীণা শিল্পকলা বিদ্যালয়।

শিশুদলের পরিবেশনার পর একক সঙ্গীত পরিবেশন করেন বুলবুল মহলানবীশ, সমর বড়ুয়া, সুরাইয়া পারভীন, আরিফ রহমান, আঁখি বৈদ্য, অনিকেত আচার্য্য, আবিদা রহমান সেতু, মাহজাবিন রহমান শাওলী, এসএম মেজবাহ, অবিনাশ বাউল, আনান বাউল, হালিমা পারভীন, শ্রাবণী গুহ রায়, নবনীতা জাইদ চৌধুরী অনন্যা, দীপাঞ্জন মুখোপাধ্যায়, বিপ্লব রায়হান, মারুফ হোসেন ও আসিফ ইকবাল সৌরভ।

একক সংগীত পরিবেশনা শেষে দলীয় নৃত্য পরিবেশন করে নৃত্যম, নৃত্যজন, স্পন্দন, ধৃতি নর্তনালয়, নূপুরের চন্দ, স্বপ্ন বিকাশ কলা কেন্দ্র ও নান্দনিক নৃত্য সংগঠন।

এর মধ্যে দিয়েই শেষ হয় একাডেমির এবারের নবান্ন উৎসব।

নবান্ন উৎসব উদযাপন পর্ষদের সহ-সভাপতি মাহমুদ সেলিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন নবান্ন উৎসব উদযাপন পর্ষদের সাধারণ সম্পাদক নাঈম হাসান সুজা।

কথন পর্বে আলোচক ছিলেন সম্মিলিত সাংস্কৃতি জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুছ ও শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী।

রাজনীতি/নাহার

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here