পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূলের এই জয় গোটা ভারতবর্ষকেই বাঁচিয়েছে : মমতা

রাজনীতি প্রতিবেদক প্রকাশিত : ৩ মে ২০২১

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে ক্ষমতায় আছেন দশ বছর হয়ে গেল। কিন্তু তার শাসনে এতো দীর্ঘ সময় পার করেও তার প্রতি আকর্ষণ কমেনি পশ্চিমবঙ্গবাসীর। ভোট গণণার প্রকৃতি বলছে, অন্তত ২১০ আসনে ভূমিধস বিজয়ের মধ্য দিয়ে আবারও ক্ষমতায় আসছেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই বিপুল জয়ের খবরে হুইল চেয়ার আবদ্ধ থাকতে পারলেন না উচ্ছ্বসিত তৃণমূল নেত্রী। নির্বাচনের জয়ের পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া জানাতে এবার হুইল চেয়ার ছেড়ে একাই উঠে দাঁড়ালেন মমতা বন্দ্যোপা্যায়। হাতে নিলেন মাইক্রোফোনের মাউথপিস। প্রথম কথাই হলো তার, এবারে পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূলের এই জয় গোটা ভারতবর্ষকেই বাঁচিয়ে দিয়েছে। বাঁচিয়ে দিয়েছে বিভেদের রাজনীতি থেকে। গোটা ভারতেকেই ঐক্যের পথে এগিয়ে নিয়েছে।

মমতা বলেন, পশ্চিমবঙ্গের মানুষের জয় হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের মা বোনদের জয় হয়েছে। সম্প্রীতির জয় হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গ আজকে সমগ্র ভারতবর্ষকে বাঁচিয়ে দিয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের জয়ে আমরা সারা ভারতবর্ষের মানুষকে আমরা অভিনন্দন জানাচ্ছি। পশ্চিমবঙ্গের এই জয় মনুষ্যত্বকে বাঁচিয়ে দিয়েছে, মানবিকতাকে বাঁচিয়ে দিয়েছে। খেলা হবে শ্লোগান দিয়ে আমরা অবশেষে খেলায় জিতেছি।

এই নির্বাচনোত্তর প্রতিক্রিয়ায় তাকে জয়ী করার জন্য ভোটারদের ধন্যবাদ জানান মমতা। তিনি তার স্বপ্নের কথাও এ সময় বলেন। তিনি বলেন, এটা ২০২১ সাল, তাই আমারও একটা টার্গেট ছিলো যেভাবেই হোক ২২১ আসন জয় করবো। এক ইন্টারভিউতেও তিনি বলেছিলেন, তিনি ডাবল সেঞ্চুরি করবেনই। নির্বাচনে সেটা সত্যও হয়েছে।

এ সময় করোনা পরিস্থিতির কথা উল্লেখ করে মমতা ভোটার সমর্থকদের প্রতি বিজয় মিছিল না করার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ল্যান্ডস্লাইড ভিক্টরি সত্বেও বড়ো আকারে শপথ অনুষ্ঠান করবেন না। সীমিত আকারে তা করা হবে। বিনা মূল্যে করোনা টিকা দেওয়ার আশ্বাসও তিনি পুনরায় ব্যক্ত করেন।

রাজনীতি/সাদেক

আপনার মতামত লিখুন :