প্রণোদনা তালিকায় অনিয়ম, পৌর কাউন্সিলর বরখাস্ত

নবীগঞ্জে প্রণোদনার ২৫০০ টাকা প্রদানের তালিকায় স্বামী, মেয়ে, দুই সহোদরের স্ত্রী, ভাইজি ও আপন সহোদরের নাম অন্তর্ভুক্তির দায়ে পৌরসভার ৪, ৫ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর রোকেয়া বেগমকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

নিজস্ব প্রতিবেদক, নবীগঞ্জ: নবীগঞ্জে প্রণোদনার ২৫০০ টাকা প্রদানের তালিকায় স্বামী, মেয়ে, দুই সহোদরের স্ত্রী, ভাইজি ও আপন সহোদরের নাম অন্তর্ভুক্তির দায়ে পৌরসভার ৪, ৫ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর রোকেয়া বেগমকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে। সোমবার স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে। স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-সচিব মোহাম্মদ ফারুক হোসেন স্বাক্ষরিত ওই প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, নারী কাউন্সিলর রোকেয়া অনিয়ম করে নিজের স্বামী,মেয়েসহ আপন দুই সহোদরের স্ত্রী, আপন ভাইজি ও সহোদরের নাম ২৫০০ টাকার প্রণোদনা তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করণের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে ।

পাশাপাশি কেন চূড়ান্তভাবে অপসারণ করা হবে না এই বিষয়ে রোকেয়া বেগমকে ১০ কার্যদিবসের সময় দেয়া হয়েছে। পৌরসভা ও উপজেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, গত ২৭ মে নবীগঞ্জ পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ড হরিপুর গ্রামের বাসিন্দা রমিজ উল্লাহ নামের এক ব্যক্তি কাউন্সিলর রোকেয়ার বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগ দেন। লিখিত অভিযোগে রমিজ দাবি করেন, ওই ওয়ার্ডের নারী কাউন্সিলর রোকেয়া বেগম নিজ পরিবারের ৬ জনের নাম তালিকাভুক্ত করে ক্ষমতার অপব্যবহার করেন। অত্র ওয়ার্ডে অনেক কর্মহীন অসহায় গরীব পরিবার থাকার পরও নিজ পরিবারের ৬ টি নাম অন্তর্ভূত করায় তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। দায়েরকৃত অভিযোগ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে তদন্ত হয়।

অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় প্রতিবেদন সংশ্লিষ্ট দপ্তরে পাঠানো হয়। এরই প্রেক্ষিতে সোমবার কাউন্সিলর রোকেয়া বেগম সাময়িক বরখাস্ত করে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়। এখবর নিশ্চিত করেছেন নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিশ্বজিত কুমার পাল। দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, স্থানীয় সরকার বিধিমালা মোতাবেক স্বামী ও নিজ কন্যার নাম অন্তর্ভুক্ত করেই ফেঁসে যান কাউন্সিলর রোকেয়া। জনপ্রতিনিধিত্ব আইনে একান্নভোগী সুবিধা গ্রহণের সুযোগ নেই।

রাজনীতি/কাসেম

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here