বগুড়ায় অজ্ঞানপার্টির খপ্পরে পড়ে চাল ব্যবসায়ীর মৃত্যু, ১৮ লাখ টাকা খোয়া

বগুড়া প্রতিনিধি: বগুড়ায় অজ্ঞানপার্টির খপ্পরে পড়ে তাপস কুমার মোহন্ত ওরফে মনো (৪২) নামের এক চাল ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে। তবে অজ্ঞানপার্টির সদস্যরা তাকে কোক জাতীয় দ্রব্য খাইয়ে অজ্ঞান করে রাস্তায় ফেলে দিয়ে তার কাছে থাকা প্রায় ১৮ লাখ টাকা নিয়ে চম্পট দিয়েছে বলে মৃত ব্যবসায়ীর পারিবারিক সুত্রে জানা গেছে। মৃত তাপস মোহন্ত শেরপুর উপজেলার সুঘাট ইউনিয়নের
সুত্রাপুর(কালিতলা) গ্রামের শম্ভু মোহন্তের ছেলে।

এ ব্যাপারে শাহজাহানপুর থানার এসআই রাজু কামাল বলেন, খবর পেয়ে ১৬ জুলাই বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে বগুড়ার জাহাঙ্গীরাবাদ সেনা ক্যাম্প এলাকায় রাস্তার পাশে পড়া থাকা ওই ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করে শজিমেক হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করলে তাপস পরদিন (১৭ জুলাই) শুক্রবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে মারা যায়।

নিহতের কাকা বিমল মোহন্ত জানান, তাপস মোহন্ত একজন চাল ব্যবসায়ী। ব্যবসার খাতিরে গত ১৬ জুলাই বৃহস্পতিবার সকালে চাল কেনার জন্য বাড়ি থেকে প্রায় ১৮ লাখ টাকা নিয়ে গাইবান্ধার মহিমাগঞ্জে যায়। সেখানে চাল কিনতে না পারায় বাসে বাড়ির দিকে ফিরছিল। ধারণা হচ্ছে বাসেই
মধ্যেই তাপসকে কোমলপানীয় দ্রব্যের মধ্যে নেশাজাতীয় কিছু খাইয়ে অজ্ঞান করে রাস্তায় ফেলে দিয়ে যায়। এদিকে রাতে সে বাড়ীতে না ফেরায় চিন্তার মধ্যে পড়ে যায় পরিবারের লোকজন। বিশেষ মাধ্যমে খবর পেয়ে শাহজাহানপুর থানার এসআই রাজু কামাল উপজেলার জাহাঙ্গীরাবাদ সেনা ক্যাম্প এলাকায় রাস্তার পাশে পড়া থাকা ওই ব্যবসায়ীকে অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার করে শজিমেক হাসপাতালে রাত সাড়ে ১১টার দিকে ভর্তি করে।

এ ব্যাপারে বগুড়ার কৈগাড়ি পুলিশ ফাঁড়ির এসআই আজিজ মন্ডল নিশ্চিত করে বলেন, শজিমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পরদিন শুক্রবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে ওই ব্যবসায়ী তাপস মারা যায়। তবে নিহত ব্যবসায়ীকে নেশা জাতীয় দ্রব্য খাইয়েই অজ্ঞান করা হয়েছিল বলে ধারনা করা হচ্ছে।

রাজনীতি/কাজল

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here