বন্দরে ধরা পড়লো থাইল্যান্ড থেকে আসা ৫৬ মেট্রিক টন সুপারি

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজনীতিঃ চট্টগ্রাম বন্দরে ঘোষণা বহির্ভূত পণ্য আমদানি করায় মেসার্স খান অ্যান্ড সন্স নামে একটি আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানের পণ্যের চালান আটকে করেছেন চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউস কর্তৃপক্ষ। কায়িক পরীক্ষায় ঘোষণা বহির্ভূত থাইল্যান্ড থেকে আসা ৫৬ মেট্রিক টন সুপারি আমদানির চালানটি ধরা পড়ে।

বৃহস্পতিবার (২৭ আগস্ট) কাস্টম হাউসের সহকারী কমিশনার নূর এ সানজিদা অনসূয়া বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

কাস্টম হাউস সূত্রে জানা গেছে, নগরের কোতোয়ালী থানার নতুন চাক্তাইয়ের ২১৩/৫, নওজোয়ান প্লাজার ঠিকানার আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান মেসার্স খান অ্যান্ড সন্সের নামে থাইল্যান্ড থেকে সুপারি ঘোষণায় একটি পণ্যচালান বন্দরে আসে। যা খালাসের জন্য সিঅ্যান্ডএফ প্রতিনিধি মেরিনো ট্রেডার্স লিমিটেড গত ৫ আগস্ট চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসে বিল অব এন্ট্রি ( বি/ই সি-১০৫৮৯৫৭) দাখিল করে।  

কাস্টম হাউস চট্টগ্রামের এআইআর শাখা ও কাস্টমস গোয়েন্দা কর্তৃক গত ২৫ আগস্ট পণ্যচালান সংশ্লিষ্ট কনটেইনার দুইটির পণ্য শতভাগ কায়িক পরীক্ষাকালে ২৯ টন বেশি সুপারি পায়। ঘোষণা অনুযায়ী ৩৬ মেট্রিক টন সুপারি থাকার কথা থাকলেও পাওয়া যায় ৫৬ মেট্রিক টন।  

কাস্টম হাউসের সহকারী কমিশনার নূর এ সানজিদা অনসূয়া জানান, পণ্যচালানটিতে ৩২ লাখ টাকা শুল্ক ফাঁকির অপচেষ্টা হয়েছে। শুল্ক ফাঁকির বিষয়ে মামলা দায়েরের কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

রাজনীতি/তারেক

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here