৫শ বছরের ইতিহাসে এই প্রথম হচ্ছে না তিরোভাব তিথি উৎসব

রাজশাহী প্রতিনিধি: ৫শ বছরের ইতিহাসে এই প্রথম করোনা ভাইরাসের কারণে রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার প্রেমতুলি খেতুরী ধামে মহারাজ ঠাকুর শীল নরোত্তম দাসের তিরোভাব তিথি মহোৎসব হচ্ছে না।

তবে ধর্মীয় আনুষ্ঠানিকতা স্বল্প পরিসরে পালন করা হবে। যেহেতু উৎসব হচ্ছে না সেকারণ সংবাদ সম্মেলন করে ভক্তদের খেতুরী ধামে না আসার অনুরোধ জানিয়েছেন শ্রীশ্রী গৌরাঙ্গদেব ট্রাস্ট বোর্ড এর সদস্যরা।

আগামী ৪ নভেম্বর থেকে ৬ নভেম্বর পর্যন্ত প্রেমতলীস্থ শ্রী পাট খেতুর ধামে শ্রীকৃষ্ণ পঞ্চমী তিথিতে এই উৎসব পালন হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনা মহামারীতে স্বাস্থ্য ঝুঁকির কারণে মন্দিরের সকল গেট বন্ধ রেখে মন্দির চত্বরে হরিনাম সংকীর্তন সহ ধর্মীয় পূজা-অর্চনা করা হবে। এছাড়া অন্যান্য সকল কার্যক্রম বন্ধ থাকবে।

বুধবার (২৮ অক্টোবর) দুপুরে রাজশাহী একটি রেস্টুরেন্টে সংবাদ সম্মেলনে আয়োজক শ্রীশ্রী গৌরাঙ্গদেব ট্রাস্ট বোর্ড এর সদস্যরা আরো জানান, মন্দিরের বাইরে কোন কীর্ত্তনের প্যান্ডেল, অস্থায়ী দোকানপাট বা অন্যান্য অনুষ্ঠানাদি করা যাবে না। তারা বলেন, আমরা কারো ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিতে চায় না, আবার কারও অকাল মৃত্যুও চায়না। আবেগ ত্বাড়িত না হয়ে জীবন রক্ষা করায় বড় ধর্ম। জীবন থাকলে ধর্ম-কর্ম এবং ভজন সাধন করা যাবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরো জানানো হয়, যতদিন পর্যন্ত করোনার ভ্যাকসিন সাধারণ মানুষের নাগালে না পৌঁছাচ্ছে, ততদিন পর্যন্ত আবেগ ত্বাড়িত চিন্তাভাবনা বাদ দিয়ে ভক্তদের ঘরে থাকার আহবান জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে আরো জানানো হয়, মন্দির প্রাঙ্গনে ভক্তরা যাতে জমায়েত করতে না পারে তার জন্য প্রশাসনের সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে। দুর দুরন্ত থেকে ভক্তরা যাতে উৎসব স্থলে আসতে গিয়ে পথে পথে প্রতিবন্ধকতার কবলে না পড়ে তার জন্যই এই সংবাদ সম্মেলন।

দূর-দূরান্ত থেকে যেসব ভক্তবৃন্দ এই উৎসবে অংশ নিতেন তাদের এ বছর খেতুর ধাম না আসার অনুরোধ জানানো হয়েছে। এলে অযোথা হয়রানির শিকার হবেন। কাজেই আমরা চায়না ভক্তরা খেতুরধামে এসে হয়রানীর শিকার হন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন শ্রী গৌরাঙ্গঁদেব বিগ্রহ ঠাকুর ট্রাস্টি বোর্ডের সভাপতি প্রফেসর ডঃ মনমোহন, উপস্থিত ছিলেন সাধারণ সম্পাদক শ্যামাপদ সান্যাল

এই ধর্মীয় উৎসবে ভারত নেপাল সহ দেশ বিদেশের প্রায় ১০ লাখ ভক্ত জমায়েত হয়।

রাজনীতি/কাসেম

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here