এএসপি পরিচয়ে ৪০ তরুণীর সঙ্গে প্রেম, এখন কারাগারে

নিজস্ব প্রতিবেদক

বুধবার, ১৩ অক্টোবর ২০২১, বিকাল ০৫:৫৪


সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) পরিচয়ে এক তরুণীর সঙ্গে প্রেম। বেশ কয়েকদিন চ্যাটিং করার পর সখ্যতা বাড়ে। ফোনেও কথা বলতেন ঘণ্টার পর ঘণ্টা। একপর্যায়ে বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে পাত্রীর বাড়িতে যান। কিন্তু সেখানে ভুয়া এএসপি প্রমাণিত হওয়ায় ধরা খেয়ে তিনি এখন কারাগারে।

মঙ্গলবার বিকেলে ময়মনসিংহের চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক দেওয়ান মনিরুজ্জামান প্রতারক সোলায়মান কবিরকে (৩৫) কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এর আগে, সোমবার (১১ অক্টোবর) রাত সাড়ে ১১টার দিকে তরুণীর বাড়ি ফুলপুরের রূপসী এলাকা থেকে সোলায়মান কবিরকে গ্রেফতার করা হয়।

প্রতারক সোলায়মান কবির শেরপুর জেলার ঝিনাইগাতি উপজেলার কুচনিপাড়া এলাকার শাহজাহান মিয়ার ছেলে। তিনি নিজেকে ৪০তম বিসিএসের এএসপি হিসেবে পরিচয় দেয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ফুলপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, প্রথমে মোবাইলে কথা বলে আমি নিশ্চিত হই যুবকটি প্রতারক। পরে পুলিশ ফোর্স পাঠিয়ে তাকে থানায় এনে আরও জিজ্ঞাসাবাদ করলে বেরিয়ে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য। তিনি নিজেকে এএসপি পরিচয় দিয়ে কমপক্ষে ৩৫ থেকে ৪০ জন মেয়ের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক করেছে। 

ওই প্রতারকের নামে ফুলপুর থানায় প্রতারণা মামলা দায়ের করে পাঁচ দিনের রিমান্ড চেয়ে মঙ্গলবার তাকে আদালতে পাঠানো হয়। পরে বিচারক তাকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

এমএসি/আরএইচ

Link copied