জমি নিয়ে বিরোধ, কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে যুবককে হত্যা

কুমিল্লা প্রতিনিধি

রবিবার, ৮ মে ২০২২, বিকাল ০৭:২৭


কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে মাত্র এক শতাংশ জমির বিরোধকে কেন্দ্র করে এক যুবককে কুড়াল দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ সময় নিহতের মা ও চাচাতো ভাইসহ তিনজন আহত হন। পুলিশ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে নারী-পুরুষসহ একই পরিবারের চারজনকে আটক করেছে।

আজ রবিবার দুপুর ২টার দিকে উপজেলার কনকাপৈত ইউনিয়নের দুর্গাপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে বলে জানান চৌদ্দগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শুভ রঞ্জন চাকমা।

নিহত মোহাম্মদ ইসরাফিল (২৮) ওই গ্রামের হানিফ মিয়ার ছেলে। তার মোহাম্মদ ঈশান নামে ১০ মাস বয়সী এক শিশুসন্তান রয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ইসরাফিলের বাবা হানিফ মিয়ার সঙ্গে একই গ্রামের মোক্তল হোসেনের মাত্র ১ শতাংশ জমি নিয়ে আদালতে মামলা চলছে। রবিবার দুপুরে পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী মোক্তল হোসেনের ছেলে সজিব হোসেন, বোন নাসরিন আক্তার, আইরিন আক্তার ও মোক্তলের স্ত্রী রহিমা বেগম ওই জায়গায় খড়ের গাদা তৈরি করছিলেন। এ সময় ইসরাফিল ও তার ভাই সালমান তাদের বাধা দেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মোক্তল হোসেনের ছেলে সজিব কিছু বুঝে ওঠার আগেই ইসরাফিলকে হাতে থাকা কুড়াল দিয়ে ঘাড়ে ও মাথায় কোপ দেন। ইসরাফিলের চিৎকারে তার চাচাতো ভাই রামীম হোসেন, মা রিনা বেগম ও চাচি আয়েশা বেগম এগিয়ে এলে মোক্তল হোসেনের ছেলে ও মেয়েরা তাদেরকেও কুপিয়ে গুরুতর আহত করেন। তাদের চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে আহতদের উদ্ধার শেষে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। পরে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ইসরাফিলকে মৃত ঘোষণা করেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক আবুল হাশেম সবুজ বলেন, ‘আহত রামীম, আয়েশা বেগম ও রিনা বেগমের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।’

এদিকে ইসরাফিলের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে উত্তেজিত গ্রামবাসী মোক্তল হোসেন, তার মেয়ে নাসরিন, আইরিন ও মোক্তলের স্ত্রী রহিমা বেগমকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।

ওসি শুভ রঞ্জন চাকমা বলেন, ‘জমিসংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় ইসরাফিল নামের ওই যুবক নিহত হয়েছেন। লাশ উদ্ধার শেষে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হচ্ছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে মোক্তল হোসেন, তার স্ত্রী ও মেয়েসহ চারজনকে আটক করেছি। এছাড়া প্রধান অভিযুক্ত সজিবকে আটকে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।’

এমএসি/আরএইচ

Link copied