সেপটিক ট্যাংকে মিলল গৃহবধূর লাশ, স্বামী-দেবর গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক

রবিবার, ২৬ জুন ২০২২, রাত ১০:২৫


কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় সেপটিক ট্যাংক থেকে রাশিদা খাতুন (৩৫) নামে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের স্বামী ও দেবরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

 

শুক্রবার রাতে উপজেলার সুখিয়া বাজার এলাকা থেকে ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করা হয়। রাশিদা খাতুন কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার আবদুল মোতালিবের মেয়ে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- গৃহবধূর স্বামী মাসুদ মিয়া (৪০) ও দেবর সোহেল মিয়া (৩৬)।

নিহতের পরিবারের অভিযোগ, যৌতুকের দাবিতে রাশিদা খাতুনকে শ্বাসরোধ করে মারা হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের বাবা মামলা করেছেন।

পাকুন্দিয়া থানার ওসি সারোয়ার জাহান জানান, ২০ বছর আগে রাশিদাকে বিয়ে করেন উপজেলার সুখিয়া গ্রামের মাসুদ। তাদের সংসারে এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। বিয়ের পর থেকেই তার স্বামী ও দেবর যৌতুকের জন্য তাকে নানাভাবে নির্যাতন করতেন। মাঝে মধ্যেই মাসুদকে টাকা দেওয়া হতো। সেই টাকা দিয়ে জুয়া খেলতেন তিনি। এ নিয়ে তাদের সংসারে কলহ লেগেই থাকত।

তিনি জানান, গ্রেপ্তার মাসুদ মিয়া ও সোহেল মিয়াকে রবিবার কিশোরগঞ্জের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হলে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন বিচারক। 

এমএসি/আরএইচ

Link copied