ছুটিতে মেসি-সুয়ারেজরা

মেসি-সুয়ারেজরা

ক্রীড়া ডেস্ক: বিশ্বের অন্য লিগগুলোর মতো করোনার কারণে দীর্ঘ প্রায় ৩ মাস বন্ধ ছিল স্পেনের লা লিগা। তিন মাস পর খেলা শুরু করে খুব দ্রুততম সময়ের মধ্যে মৌসুম শেষ করা হয়। আর তাই প্রত্যেক দলকে বিশ্রাম ছাড়াই খুব ঘন ঘন ম্যাচ খেলতে হয়। বার্সেলোনা ও রিয়াল মাদ্রিদের ব্যাপারটি ছিল অন্য দলের চেয়ে আলাদা। কারণ তাদের ঘন ঘন ম্যাচ খেলা ছাড়াও মাথায় ছিল শিরোপা জয়ের বাড়তি চাপ। শেষ পর্যন্ত রিয়াল শিরোপা জিতলেও দুই দলের ওপরই গেছে বড় রকমের ধকল। লা লিগা শেষ হয়ে গেছেই বলেই এখনই বড় রকমের বিশ্রাম পাবেন না তারা। কারণ দুই দলই আবার আগামী মাসে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের লড়াইয়ে নেমে যাবে।

আর তাই চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলতে নামার আগে নিজেদের ফুরফুরা করার জন্য ছুটির প্রয়োজন ছিল দুই দলের খেলোয়াড়দেরই। সেই প্রয়োজনীয় ছুটি পেয়েছেন তারা। জানা গেছে বার্সেলোনার খেলোয়াড়দের ১ সপ্তাহের জন্য ছুটি দিয়ে দিয়েছেন কোচ কিকে সেতিন। আগামী মঙ্গলবার পর্যন্ত দলের কোনো খেলোয়াড়কে অনুশীলনে আসতে হবে না। অন্যদিকে রিয়াল মাদ্রিদ কোচ জিনেদিন জিদানও তার শীর্ষদের বেশ কয়েকদিনের জন্য ছুটি দিয়ে দিয়েছেন।

এদিকে ছুটি পেয়েই তা কাজে লাগানো শুরু করে দিয়েছেন মেসিরা। টানা অনেকদিন খেলার পর ফের ছুটি পেয়ে তারা বিভিন্ন জায়গায় ঘুরতে বেরিয়ে পড়েছেন। যদিও বর্তমানে করোনা ভাইরাসের কারণে মানুষকে অতি প্রয়োজন ছাড়া এক স্থান থেকে আরেক স্থানে না যাওয়ার অনুরোধ করেছে বার্সেলোনা মেট্রোপলিটন। কিন্তু সেই অনুরোধ অগ্রাহ্য করে শহর ছেড়ে অন্য শহরে গেছেন তারা। যেহেতু চলাচলে নিষেধাজ্ঞা নেই। ফলে মেসিরা অনুরোধ না শুনে অন্য শহরেই ঘুরতে বেরিয়ে গেছেন। শোনা যাচ্ছে মেসি ও সুয়ারেজ গেছেন ইবিজায়। সেখানে ছুটির সময়গুলো আনন্দে কাটাবেন তারা।

ছুটি পেলেই ঘুরতে বেরিয়ে পরা মেসির আগেরই অভ্যাস। নিজেকে ফুরফুরে রাখতে তিনি যখনই ছুটি পান তখনই পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ঘুরতে বেরিয়ে পড়েন। আর এই পুরনো অভ্যাসের কারণেই করোনাও তাকে ঘরে আটকে রাখতে পারেনি। তিনি ঘরে থাকার অনুরোধ না মেনেই ঘুরতে বেরিয়ে পড়েছেন।

রাজনীতি/আফজাল

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here