শেষ সময়ে এন্ড্রু কিশোরকে হারাতে হয় নীড়ের ঠিকানাও

বিজ্ঞাপন
8 Shares

রাজশাহী প্রতিনিধি: বাংলা গানের বরপুত্র এন্ড্রু কিশোরের জীবনের শেষ দিনগুলো সুখকর ছিলো না। বেঁচে থাকার লড়াইয়ে জীবনের সব সঞ্চয় যখন ফুরিয়ে গেছে, তখন এন্ড্রু কিশোরকে হারাতে হয় নীড়ের ঠিকানাও।

সুস্থ হয়ে গানের ভুবনে ফেরার আশায় রাজশাহীতে নিজের ফ্ল্যাট বিক্রি করেছিলেন বাংলা গানের প্লে-ব্যাক সম্রাট। সহকর্মী-পরিচিতজনদের থেকে আড়ালে অনেকটা নিঃসঙ্গ জীবনযাপন করছিলেন। পরিবারের সদস্য ছাড়া তেমন কারও সঙ্গে যোগাযোগও করতেন না।

রাজশাহী মহানগরীর পদ্মা আবাসিক এলাকায় ১ নম্বর সড়কের ৩২৬ নম্বর ভবনে মারস্যুপিয়াম অ্যাপার্টমেন্টের পূর্বাংশে দ্বিতীয় তলার ফ্ল্যাটটিই ছিল এন্ড্রু কিশোরের। ক্যান্সারের চিকিৎসায় প্রায় ৩ কোটি টাকা দরকার ছিল। জীবনের সব সঞ্চয় হারিয়ে শেষ পর্যন্ত চিকিৎসার খরচ যোগাতে নিজের শহর রাজশাহীতে কেনা সেই বাড়িটিও গত বছরের অক্টোবরে বিক্রি করতে হয়েছে তাকে।

এন্ড্রু কিশোরের ঘনিষ্ঠজনরা বলছেন, চিকিৎসার জন্য কারো কাছে হাত পাততে চাননি তিনি। নিজের জমানো টাকা দিয়ে চিকিৎসা শুরু করেছিলেন। কিন্তু কুলিয়ে উঠতে না পেরে নিজের শখের ফ্ল্যাটটিও বিক্রি করে দেন। বাড়ি বিক্রি করে চিকিৎসার জন্য ৩০ লাখ টাকার মতো সংস্থান হয়। এরই মধ্যে এন্ড্রু কিশোরের চিকিৎসার জন্য তার পরিবার খরচ করে এক কোটি টাকারও বেশি।

রাজনীতি/কামরুল

8 Shares
বিজ্ঞাপন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here