সাধারণ শিক্ষার চেয়ে কারিগরি শিক্ষায় জোর দিচ্ছে সরকার : শিক্ষামন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, এতো বড় জনসংখ্যার দেশে শিক্ষার্থীকে পড়াশোনা করে শুধু চাকরি খুঁজলে চলবে না, তাকে উদ্যোক্তা হতে হবে। নিজের কর্মস্থান নিজের করতে হবে। এজন্য প্রয়োজনীয় শিক্ষা দিতে হবে। তাই সাধারণ শিক্ষার তুলনায় কারিগরি শিক্ষায় বেশি জোর দিচ্ছে সরকার।সোমবার (৩১ আগস্ট) বিকালে শিক্ষা বিষয়ক রিপোর্টারদের সংগঠন ‘এডুকেশন রিপোর্টাস এসোসিয়েশন, বাংলাদেশ (ইরাব) এর আয়োজিত এক অনলাইন সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, সাধারণ ও মাদ্রাসা শিক্ষায় নবম ও দশম শ্রেণিতে কারিগরি শিক্ষার অন্তত দুটি ট্রেড বাধ্যতামূলক করার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। ২০২১ সাল থেকে এটি করার কথা থাকলেও করোনা ভাইরাসের কারণে এর প্রস্তুতি নেওয়া সম্ভব হয়নি। আশা করছি, ২০২২ সালের প্রথম থেকেই এটি শুরু করা সম্ভব হবে।দীপু মনি বলেন, শিক্ষার্থীদের সময়ের সঙ্গে উপযোগী করে গড়ে তুলতে হবে। কোন কাজকেই ছোট করে দেখা যাবে না। সকল ক্ষেত্রে মানসিকতার পরিবর্তন করতে হবে। ভবিষ্যৎকে গড়ার যোগ্যতা অর্জন করতে হবে তাদের।

পরিকল্পনা করে সেটি নিখুঁতভাবে বাস্তবায়নের চেষ্টা করতে হবে।মন্ত্রী বলেন, স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসা এমপিওভুক্তির জন্য প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন থাকলেও অর্থের সঙ্কুলান না থাকায় সেটি সম্ভব হয়নি। আগে যত্রতত্র যে কেউ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান স্থাপন করে ফেলতেন। এখন অনুমোদন নিয়েই এসব স্থাপন করতে হবে।ইরাব সভাপতি মুসতাক আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব আমিনুল ইসলাম খান, বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আবুল কাশেম, কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মোরাদ হোসেন মোল্ল্যা, মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক কায়সার আহমেদ, স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ শাহজাহান আলম সাজু প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

রাজনীতি/কাসেম

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here