৫ ভারতীয়কে ফেরত দিচ্ছে চীন

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ লাদাখ সীমান্তে চলমান উত্তেজনার মধ্যে এ মাসের শুরুতে ভারতের অরুণাচল প্রদেশ থেকে (চীন অবশ্য অরুণাচলকে নিজেদের অংশ দাবি করে) নিখোঁজ হওয়া পাঁচ ভারতীয় নাগরিককে আগামীকাল শনিবার দেশে ফেরত পাঠানোর কথা জানিয়েছে চীন। সীমান্ত উত্তেজনা প্রশমনে রাজি হওয়ার পর বেইজিং এ কথা জানাল।

অরুণাচল থেকে নির্বাচিত ভারতীয় এমপি ও দেশটির বর্তমান মন্ত্রিসভার সদস্য কিরেন রিজিজু শুক্রবার টুইট করে এমন তথ্য জানিয়েছেন। এ দিন বিরোধপূর্ণ সীমান্ত নিয়ে সাম্প্রতিক সময়ে দানা বেধে ওঠা উত্তেজনা হ্রাস এবং সেখানে ‘শান্তি ও স্থিতাবস্থা’ ফিরিয়ে আনার পদক্ষেপ নিতে একমত হওয়ার ঘোষণা দেয় চীন ও ভারত।

কিরেন রিজিজু টুইট বার্তায় লিখেছেন, ‘চীনা পিএলএ (চীনের সেনাবাহিনী) ভারতীয় সেনাবাহিনীকে অরুণাচল প্রদেশের যুবকদের আমাদের কাছে হস্তান্তর করার বিষয়ে নিশ্চিত করেছে। আগামীকাল যে কোনও সময়, অর্থাৎ ১২ সেপ্টেম্বর ২০২০ একটি নির্ধারিত স্থানে তাদেরকে হস্তান্তর করার সম্ভাবনা রয়েছে।’

জুনে লাদাখ সীমান্তে চীনা সেনাদের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে ২০ ভারতীয় জওয়ান নিহত হওয়ার পর চীন-ভারত উত্তেজনার শুরু। এরপর নানা আলোচনা হলেও পরিস্থিতির অবনতি হচ্ছিল দ্রুতই। সীমান্তে গুলি ছোড়ার পাশাপাশি দুই দেশ অতিরিক্ত সেনা মোতায়েন করে। এর মধ্যে গত ২ সেপ্টেম্বর ওই ৫ যুবক নিখোঁজ হয়।

লাদাখ সীমান্তের উত্তেজনা নতুন দিকে মোড় নেয় যখন অরুণাচল প্রদেশ থেকে ওই পাঁচ যুবক নিখোঁজ হওয়ার পর। প্রথমে চীনের পক্ষে কিছু জানানো না হলেও পরে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তাদের কাছে ওই যুবকদের তাদের কাছে কথা নিশ্চিত করে। এরপর তাদের ভারতের কাছে হস্তান্তরের প্রতিশ্রুতি দিল চীন।

হিমালয় সীমান্তে চলমান উত্তেজনা প্রশমনে বিরোধপূর্ণ এলাকাগুলোতে মোতায়েন সেনা সরিয়ে নেয়ার ব্যাপারে একমত হয়েছে দুই পক্ষই। এর আগে মস্কোতে দুই দেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক ব্যর্থ হওয়ার পর চীন-ভারত পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক শেষে শুক্রবার যৌথ বিবৃতিতে এমন ঘোষণা দেয় বেইজিং-নয়াদিল্লি।

রাজনীতি/কাজল

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here