চকোলেট দিয়ে রূপচর্চা, বাড়ে ত্বকের উজ্জ্বলতা

লাইফস্টাইল ডেস্ক

বুধবার, ৬ অক্টোবর ২০২১, বিকাল ০৬:৪৩


নিজের প্রতি যত্নশীল হওয়ার প্রথম ধাপই মনে হয় রূপচর্চা। আপনি নিয়মিত ত্বকের যত্ন নেন এর অর্থ হলো আপনি নিজেকে ভালোবাসেন, সবার সামনে নিজেকে পরিপাটি হিসেবে উপস্থাপন করতে চান। ত্বকের যত্ন নেওয়ার জন্য আপনাকে কাড়ি কাড়ি টাকা খরচ করতে হবে না। এমনকী পার্লারে যাওয়ারও পড়বে না প্রয়োজন। বরং নিজের যত্নটুকু নিজেই নিতে পারবেন। চকোলেট তো কম-বেশি খাওয়া হয়ই, সেই সুস্বাদু চকোলেট যে আপনার ত্বকের যত্নেও সমান উপকারী তা কি জানতেন?

চকোলেটে আছে ফাইটোকেমিক্যালের মতো পলিফেনল রয়েছে, যার ভেতরে থাকে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট বৈশিষ্ট্য। এটি আমাদের ত্বকের কোমলভাব বজায় রাখতে কাজ করে। চকোলেটে থাকা আরও অনেক উপকারী উপাদান সহজেই ত্বককে উজ্জ্বল করে তোলে। পাশাপাশি এটি মুক্তি দেয় বলিরেখা থেকেও। খাওয়ার পাশাপাশি রূপচর্চার কাজেও ব্যবহার করতে পারেন চকোলেট।

রূপচর্চার কাজে চকোলেট ব্যবহার করতে চাইলে বাড়িতেই তৈরি করতে পারেন চকোলেটের ফেসপ্যাক। আপনি চাইলে বাজার থেকেও চকোলেটের ফেসপ্যাক কিনতে পারবেন। কিন্তু এর বদলে নিজেই যদি তৈরি করে নিতে পারেন তবে সেটি বেশি ভালো হবে। কারণ বাড়িতে তৈরি যেকোনো কিছুই বেশি উপকারী। জেনে নিন রূপচর্চার কাজে চকোলেট কীভাবে ব্যবহার করবেন-

চকোলেট ক্লিনজার

ডার্ক কোকো পাউডার ও দুধের সঙ্গে যেকোনো ক্লিনজার ভালো করে মিশিয়ে নিলেই তৈরি হবে চকোলেট ক্লিনজার। এই ক্লিনজার ব্যবহার করলে তা যেকোনো ত্বকেই উপকার বয়ে আনবে। এটি ব্যবহার করলে তা ত্বকের ভেতর থেকে ময়লা পরিষ্কার করবে। এর ফলে ত্বক আরও বেশি কোমল ও সতেজ হয়ে উঠবে। আপনি চাইলে স্ট্রবেরি থেতলে নিয়ে তার সঙ্গেও মেশাতে পারেন কোকো পাউডার। এরপর ত্বকে ব্যবহার করতে পারেন স্ক্রাব হিসেবে। এটিও কিন্তু সমান উপকার করবে। 

চকোলেট-মুলতানি মাটির প্যাক

আপনি যদি চকোলেটের সঙ্গে মুলতানি মাটি মিশিয়ে ত্বকে ব্যবহার করেন তবে বেশি উপকার পাবেন। এতে খরচও খুব একটা হবে না। ফেসপ্যাকে কোকো পাউডার বা চকোলেটের গুঁড়া থাকলে তা সেলুলার মেটাবলিক প্রক্রিয়ায় বলিরেখা দূর করে। সেইসঙ্গে এটি ত্বকের ভেতরে থাকা ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া মেরে ফেলতেও কাজ করে। নিয়মিত এই প্যাক ব্যবহার করলে দূর হয় ত্বকের কালো দাগ। এভাবে ধীরে ধীরে বাড়তে থাকবে আপনার ত্বকের উজ্জ্বলতা।

লক্ষ করুন

চকোলেট আমাদের ত্বকের জন্য উপকারী তাতে সন্দেহ নেই। কিন্তু চকোলেট দিয়ে তৈরি ফেসপ্যাক খুব বেশিদিন ফ্রিজে রাখবেন না। কারণ ফ্রিজে চকোলেট রাখলে এর ওপরে একটি সাদা আস্তরণ পড়ে। সেটি হলো চকোলেটের ফ্যাট। আপনি যদি সেই চকোলেট ত্বকে ব্যবহার করেন তাহলে ফ্যাটটুকু সরাসরি মুখে যোগ হবে। এতে লোমকূপ বন্ধ হয়ে ব্রণসহ ত্বকের আরও অনেক সমস্যা দেখা দিতে পারে।

 

এমএসি/আরএইচ

Link copied