প্রধানমন্ত্রীকে লাল গালিচা অভ্যর্থনা জানাবে ফ্রান্স

রাজনীতি ডেস্ক

মঙ্গলবার, ৯ নভেম্বর ২০২১, দুপুর ০৪:৩৪


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে লাল গালিচা অভ্যর্থনা জানাতে প্রস্তুত ফ্রান্স।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে লাল গালিচা অভ্যর্থনা জানাতে প্রস্তুত ফ্রান্স। মঙ্গলবার (৯ নভেম্বর) প্যারিসে পৌঁছানোর পর দ্য গল বিমানবন্দরে তাকে এ সম্মান দেওয়া হবে। সোমবার (৮ নভেম্বর) ফ্রান্সে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত খন্দকার এম তালহা সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীকে বিমানবন্দরে লাল গালিচার পাশাপাশি আর্মস স্যালুট দেওয়া হবে। এছাড়া লা ইনভালিদাস অর্থাৎ যুদ্ধে নিহত সৈনিকদের স্বীকৃতি দেওয়ার জন্য মনুমেন্টে গার্ড অব অনার দেওয়া হবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে।’
 
দীর্ঘ ২২ বছর পর মঙ্গলবার (৯ নভেম্বর) ফ্রান্স সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই সফরে রাষ্ট্রপ্রধান, সরকারপ্রধান ও ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে অংশ নেবেন প্রধানমন্ত্রী।
 
একইসঙ্গে ইউনেস্কোর ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে অংশগ্রহণ ও প্রথম ‘ইউনেস্কো-বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু পুরস্কার’ নিজ হাতে বিজয়ীদের তুলে দেওয়ারও কথা রয়েছে। এদিকে তার এ আগমনকে কেন্দ্র করে দেশটিতে বসবাসরত প্রবাসীদের মধ্যে উচ্ছ্বাস ও‌‌ আনন্দ বিরাজ করছে।  
ফরাস‌ি সরকারের আমন্ত্রণে আনুষ্ঠানিক সফরে ফ্রান্সে যাচ্ছেন শেখ হাসিনা। নানা কারণে এবারে তার এ সফরটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এতে ফরাসি বাংলাদেশি ব্যবসায়ী নেতারাও অংশগ্রহণ করবেন। ব্যবসায়ীরা জানান, বাংলাদেশে বিনিয়োগের‌ যে সুযোগ রয়েছে সেটিকে তারা কাজে লাগাতে চান।
 
ফ্রান্স বাংলাদেশ ইকোনমিক চেম্বার্সের সভাপতি কাজী এনায়েত উল্লাহ বলেন, প্রধানমন্ত্রীর ফ্রান্স সফর অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এখানে আমাদের সভা আছে। বিনিয়োগ বিষয়ে প্রধামন্ত্রী নিশ্চয়ই পরামর্শ দেবেন।
 
এদিকে প্রধানমন্ত্রীর আগমনকে কেন্দ্র করে দেশটিতে বসবাসরত প্রবাসীরা উচ্ছ্বসিত। শেখ হাসিনাকে যে সম্মাননা দেওয়া হবে তাতে বাংলাদেশ তথা প্রবাসীরাও সম্মানিত বোধ করবেন বলেই‌ মত তাদের।
 
চিত্রশিল্পী শাহাবুদ্দিন আহমেদ বলেন, প্রধানমন্ত্রীকে লাল গালিচা সংবর্ধনা দেওয়া হবে, যেখানে নেপোলিওনের কবর আছে। এটা খুবই দুর্লব ঘটনা। এটা একটা বড় সম্মান। গুরুত্বপূর্ণ এ সফরে বঙ্গবন্ধুকন্যাকে সম্মান দেওয়া হচ্ছে।
 
প্রবাসীরা বলছেন, প্রধানমন্ত্রীকে তিন জায়গায় গার্ড অব অনার দিয়ে সম্মান জানানো হবে। তাকে এ সম্মান জানানোর মধ্য দিয়ে আমরা মনে করি ফ্রান্সে প্রবাসী বাংলাদেশিরা সম্মানিত হবেন। শেখ হাসিনা দক্ষতার কারণেই হয়তো বাংলাদেশের নারী গোষ্ঠি, যারা অনেক পেছনে ছিল, তাদের অনেকেই নারী নেতৃত্বে এগিয়ে এসেছেন। তার ফ্রান্স আগমন উপলক্ষে আমরা গর্বিত।
 
সফরকালে তিনি সৃজনশীল অর্থনীতিতে অবদানের জন্য প্রবর্তিত ‘ইউনেসকো-বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আন্তর্জাতিক পুরস্কার’ বিজয়ীদের হাতে তুলে দেবেন।

এমএসি/আরএইচ

Link copied