মাদক মামলায় একজনের ফাঁসিসহ ছয়জনের সাজা

খুলনা প্রতিনিধি

বৃহস্পতিবার, ৭ অক্টোবর ২০২১, বিকাল ০৭:০১


খুলনায় মাদক মামলায় একজনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত। এছাড়া আরো পাঁচজনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে খুলনার সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মশিউর রহমান চৌধুরী এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সময় আসামিরা উপস্থিত ছিলেন।

আদালতের পিপি এনামুল হক জানান, আসামি বিকাশ চন্দ্র বিশ্বাসকে ফাঁসির আদেশের পাশাপাশি এক লাখ টাকা জরিমানা ককরে আদালত। এছাড়া সোহেল রানাকে আমৃত্যু কারাদণ্ড ও এক লাখ টাকা জরিমানা, ছগিরকে ১৫ বছর সশ্রম কারাদণ্ড ও এক লাখ জরিমানা অনাদায়ে আরো দুই বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং বিকাশ চন্দ্র মণ্ডল, এরশাদ ও ফজলুর রহমান ফকিরকে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ২৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

মামলার এজাহারের বরাত দিয়ে এনামুল হক জানান, ২০১৭ সালের ১১ আগস্ট রাত পৌনে ১০টার দিকে খুলনা নগরীর ময়লাপোতা মোড় এলাকায় অভিযান চালায় র‌্যাব-৬। এ সময় কয়েকজন পালানোর চেষ্টা করলে সোহেল রানাকে আটক করেন র‌্যাব সদস্যরা। পালানোর কারণ জানতে চাইলে নিজের কাছে কোকেন রয়েছে বলে জানান সোহেল। পরে তার কাছ থেকে ২৩০ গ্রাম কোকেন উদ্ধার করে র‌্যাব। যার অনুমানিক মূল্য দুই কোটি ৩০ লাখ টাকা।

পরে সোহেলের দেওয়া তথ্যমতে গগনবাবু রোডের একটি বাড়ি থেকে কোকেন বিক্রির মূলহোতা আরিফুর রহমান ছগিরকে আটক করা হয়। ছগিরের তথ্যমতে দাকোপ উপজেলায় অভিযান চালিয়ে বিকাশ চন্দ্র মণ্ডল ও ফজলুর রহমান ফকিরকে আটক করা হয়। পরে টুটপাড়ায় অভিযান চালিয়ে এরশাদ আলীকে আটক করা হয়। এরপর রূপসা উপজেলার রাজাপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে বিকাশ চন্দ্র বিশ্বাসকে আটকের সময় তিন প্যাকেট কোকেন পাওয়া যায়। যার ওজন দুই কেজি ২০ গ্রাম। সোয়া দুই কেজি কোকেনের মূল্য ২২ কেটি ৫০ লাখ টাকা। এরপর তাদের বিরুদ্ধে রূপসা থানায় মাদক আইনে মামলা করেন র‌্যাব কর্মকর্তা মো. রবিউল ইসলাম।

এমএসি/আরএইচ

Link copied